নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ফাইল ছবি

জিকা ভাইরাস আতঙ্কে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনে স্বাস্থ্য কর্মীদের অধিক সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। দেশের অন্যান্য ইমিগ্রেশন চেকপোস্টেও একই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।
 
এদিকে, সতর্কতা জারির পরপরই বেনাপোল ইমিগ্রেশনে পাঁচ সদস্যের একটি মেডিকেল টিম বিদেশি নারী যাত্রীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার কাজ শুরু করেছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন সূত্র জানায়, জিকা ভাইরাস এডিস মশার কামড় থেকে ছড়ায়। এতে গর্ভবর্তী মায়েরা আক্রান্ত হন। এর আগে চলতি বছরের প্রথম দিকে এ ভাইরাসে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বর্তমানে নতুন করে কয়েকটি দেশে জিকা ভাইরাসে কয়েকজন আক্রান্ত হওয়ার খবরে নতুন করে এ সতর্কতা জারি করা হয়।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের স্বাস্থ্য পরিদর্শক প্রনয় সরকার জানান, বেনাপোল দিয়ে প্রতিদিন চার থেকে সাড়ে চার হাজার যাত্রী চিকিৎসা, ব্যবসা ও ভ্রমণের  কাজে যাতায়াত করেন। এরমধ্যে তিন থেকে চার শতাধিক থাকছে বিদেশি যাত্রী। জিকা ভাইরাস আক্রান্ত নারীদের কেউ যাতে কোনোভাবে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারেন এজন্য তারা সতর্ক রয়েছেন।

তিনি জানান, ভারত হয়ে যেসব বিদেশি গর্ভবতী নারীরা আসছেন বাংলাদেশে ঢোকার আগমুহূর্তে তাদের শরীরের তাপমাত্রা নির্ণয়সহ কয়েকটি পরীক্ষা করা হচ্ছে। এজন্য ইমিগ্রেশনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে থার্মাল স্ক্যানার স্থাপন করা হয়েছে। এতে সহজে এ ভাইরাস শনাক্ত করা যাবে।

আপনার মন্তব্য