নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ছবি: সংগৃহীত

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে শনিবার বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নয়াপল্টনে সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা সরকারের ওপর মহলের নির্দেশেই হয়েছে। ২০১৪ সালের মতো আরেকটি একতরফা নির্বাচন করার কূটচালের অংশ হিসেবে এমনটা করা হচ্ছে। বেগম খালেদা জিয়াকে হয়রানি করে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।’

রিজভী বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া লন্ডনে চিকিৎসাধীন। তিনি যে অসুস্থ এটা আদালতে জানানোর পরও একের পর এক মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করছে।’

খালেদা জিয়া দেশে ফিরে আসার প্রাক্কালে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা উদ্দেশ্যমূলক বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানিতে হাজির না থাকায় বৃহস্পতিবার বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামান।

এর আগে স্বাধীনতা বিরোধীদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়ে দেশের মানচিত্র এবং জাতীয় পতাকার মানহানি করার অভিযোগে আরেক মামলায় সমন জারির পরও আদালতে না আসায় বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকার মহানগর হাকিম নূর নবী।

এ ছাড়া কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে দুই বছর আগে বাসে পেট্রলবোমা মেরে আটজনকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় বিস্ফোরক আইনের মামলায় গত সোমবার বেগম খালেদা জিয়াসহ ‘পলাতক’ আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

সংবাদ সম্মেলেনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালি, দলের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানা উল্লাহ মিয়া, বিএনপি নেতা এম এম মালেক, কাজী আবুল বাশার, আব্দুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

আপনার মন্তব্য