বিনোদন ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Jessia Islam
মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

একেরপর এক বিতর্ক লেগে আছে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগীতা নিয়ে। এতে নির্বাচিত প্রতিযোগীদের নিয়েও চলছে বিতর্ক, তর্ক, তামাশা, ব্যঙ্গ।

ফেসবুক জুড়ে নতুন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলামকে নিয়ে করা হচ্ছে নানা ধরনের ব্যঙ্গ। বিশেষ করে তার দাঁত নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। এসব কর্মকাণ্ড বন্ধ করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জেসিয়া ইসলাম।

তিনি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন-‘কিছু পেজ, গ্রুপ ও প্রোফাইল যারা আমাকে নিয়ে মজা করছে, তাদের সম্পর্কে সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য আমার একটি বার্তা রয়েছে, আমার একটি ছোট অনুরোধ রয়েছে সবার প্রতি। অনুগ্রহ করে সিরিয়াস হোন, সময় অপচয় করবেন না এবং আমাকে নিয়ে মজা করা বন্ধ করুন। আমি হয়তো অন্যান্যদের মতো চমৎকার নই কিন্তু আমি শিগগিরই আমাদের সকলের ভালোবাসার বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছি, এটি একটি সিরিয়াস বিষয়। আপনারা যদি আমাকে একটি ভালো পন্থায় সমর্থন না দেন, তাহলে আমি কীভাবে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করব! ঐশ্বরিয়া রায়ের দাঁতে সমস্যা ছিল, সেটা সব সময় সৌন্দর্যের জন্য প্রাসঙ্গিক নয়। কোয়ালিটি থাকলে প্রকৃতিই আপনাকে খুঁজে নেবে, এটা আমি বিশ্বাস করি’।

 

জেসিয়া ইসলামের দাঁতের গঠন নিয়ে পোস্ট দিয়েছেন অনেকেই। ফেসবুকের সার্চ বক্সে সার্চ দিলেই ওসব পোস্ট দৃষ্টিগোচর হয়। কেউ করছেন কটাক্ষ, কেউ করছেন ব্যঙ্গ। মানুষের বাহ্যিক আকার আকৃতি নিয়ে ফেসবুকে চলছে রম্যতা ও সমালোচনা! একজন লিখেছেন-‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ হয়েও বাদ পড়া এবং পরে যিনি হয়েছেন দুজনই দাঁতের দিক দিয়ে এগিয়ে’।

আরেকজন জেসিয়ার ছবি সমেত একটি পোস্টে লিখেছেন- ‘এই মহিলা নতুন মিস বাংলাদেশ। দেশে আর কোন চিরল দাঁতের সুন্দরী ছিল না। বাংলাদেশের সুন্দরীদের এভাবে অপমান করার অধিকার কী আয়োজকদের দেওয়া হয়েছিল’। এই পোস্টের নিচে একজন আবার কমেন্ট করেছেন ‘মাথাফুলা’। এরকম অসংখ্য পোস্ট ঘুরে বেড়াচ্ছে ফেসবুকের দেওয়ালে দেওয়ালে। ক’জনেরটা আর তুলে ধরা যায়!

দাঁত নিয়ে কথা কেন? জেসিয়া ইসলামের দাঁতের নিন্দা করা একজন ফেসবুক ব্যবহারকারীর সঙ্গে ইনবক্সে যোগাযোগ করলে তিনি জানিয়েছেন-

‘আমি জাস্ট বুঝিয়েছি, বাংলাদেশের যি‌নি মিস হলেন তার দাঁতগুলো এবড়ো থেবড়ো কেন হলো। কাল দেখলাম তিনি যখন কথা বলার সময় হাসছেন, দেখতে খুব বিশ্রী লাগছে। এর চেয়ে বেটার অপশন কি ছিল না প্রতিযোগিতায়? জাস্ট তার দাঁতগুলা‌ দেখতে বিশ্রী লাগ‌ছিল। এখন যেহেতু তিনি ষোল কো‌টি মানুষের প্র‌তি‌নি‌ধি, তাই পোস্ট দিয়েছি।

আপনার মন্তব্য