Myanmer-people attrack to muslim in another region
ছবি: সংগৃহীত

মিয়ানমারের মধ্যাঞ্চলীয় প্রাচীন মেগওয়ের তউংদুইঙ্গি এলাকায় মুসলমানদের মালিকানাধীন দোকান ও ঘরবাড়িতে হামলা চালিয়েছে উগ্র জাতীয়তাবাদীরা। এ ঘটনায় অন্তত চারজনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। রবিবার রাতে এ উগ্রপন্থীরা জাতীয় সঙ্গীত গাইতে গাইতে হামলা চালায় বলে দেশটির অনলাইন সংবাদপত্র ফ্রন্টিয়ার মায়ানমারে বলা হয়েছে।

এ শহরে এই প্রথম এধরনের কোনো হামলার ঘটনা ঘটলো। হামলাকারীরা সংখ্যায় প্রায় ৪০০ ছিল বলেও খবর পাওয়া গেছে।

সরকারি ভাষ্যমতে, তউংদুইঙ্গিতে প্রায় ৫০জন যুবক গুলি চালাতে চালতে বিভিন্ন বাড়িতে ছিনতাই করতে গেলে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। দলটি শহরে সে কিয়ার ইন এর ১ নং ওয়ার্ডের দিকে গেলে জাতীয় সংগীত গাইতে গাইতে তারা অধিকাংশ বাড়িতে হামলা চালায় এবং দোকান লুটপাট করে। অন্যদিকে পুলিশ আগে থেকেই এলাকাটির স্থানীয় মসজিদের পাশে গিয়ে অবস্থান নেয়। ফলে সেটা হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।

সোমবার দেশটির পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, সন্ধ্যায় দাঙ্গার নেতৃত্ব দেওয়ার সন্দেহে হেন ক কো লিইন (৩০) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এবং ঘটনার পরের দিন সকালে আরো তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ন্যাশনাফ লিগ ফর ডেমোক্রেসির স্থানীয় নেতা উ মিন থিন বলেছেন, পুলিশ ও স্থানীয়রা মনে করছে, গ্রেপ্তার চারজনের সাথে প্রথম হামলা চালানো বাড়ির লোকের পূর্ব শত্রুতার পরিপ্রেক্ষিতে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে সেখানকার ধর্মীয় নেতারা এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দাঙ্গা বাধানোরে চেষ্টা করেছে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, তউংদুইঙ্গিতে এ ধরনের ঘটনা এটাই প্রথম। এর আগে আমি কখনো এখানে ধর্মীয় সহিংসতা হতে দেখিনি। কারণ এখানকার উভয় সম্প্রদায়ই শান্তি প্রিয়।

সোমবার এলাকাটি  মেগওয়ে শহরের প্রধান উ অন মু নিও পরিদর্শন করেছেন। একই সঙ্গে সার্বিক নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন। সংশ্লিষ্টরা বলছেন পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।

 

আপনার মন্তব্য