বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Rohingya
ছবি: সংগৃহীত

রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে জরুরি বৈঠক আহ্বান করা হয়েছে। যুক্তরাজ্য ও সুইডেন বুধবার জরুরি এই বৈঠকে বসার অনুরোধ করে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার কমিশনের প্রধান মিয়ানমারে ‘জাতিগত নিধন হচ্ছে’ বলে সতর্ক করার পর এই বৈঠকের আহ্বান করা হয়। সূত্র আলজাজিরা অনলাইন।

গত ২৫ আগস্ট থেকে সহিংসতা শুরু হওয়ার পর, জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী এই পর্যন্ত মিয়ানমারের পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্য থেকে ৩ লাখ ৭০ হাজার নিপীড়িত রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।রোহিঙ্গাদের বহু গ্রাম পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সহিংসতায় নিহত হয়েছে কমপক্ষে ১ হাজার, আহত হয়েছে অনেক রোহিঙ্গা। 

পালিয়ে বাংলাদেশে আসার পথে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর গুলি ও সীমান্ত অঞ্চলে তাদের পুতে রাখা ল্যান্ডমাইনের বিস্ফোরণে অনেকে হতাহত হয়েছে।

সোমবার জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের প্রধান কমিশনার জেইদ রাদ আল-হুসেইন বলেন, আন্তর্জাতিক আইনের মৌলিক নীতির তোয়াক্কা না করে নির্বিচারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাচ্ছে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ। রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে বর্বর সামরিক অভিযান বন্ধ করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মিয়ানমারের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

বাংলাদেশ রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে পদক্ষেপ নিয়েছে। মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিয়ানমারকে তার দেশের নাগরিকদের ফেরত নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। 

তিনি বলেন, মিয়ানমার এই সমস্যা তৈরি করেছে এবং তারাই এই সমস্যার সমাধান করবে। আমরা আমাদের প্রতিবেশীদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক রাখতে চাই।

কক্সবাজারের উখিয়ায় মিয়ানমার সীমান্তের কাছে শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। এর আগে গত সোমবার সংসদে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারের উপর চাপ তৈরি করতে আহ্বান জানানোর জন্য একটি প্রস্তাব অনুমোদিত হয়।

আপনার মন্তব্য