নিজস্ব প্রতিবেদক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ফাইল ছবি

৩৬তম বিসিএস পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল শিগগির প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক। তবে কবে নাগাদ প্রকাশ করা হবে, সে দিনক্ষণ নির্দিষ্ট করে বলেননি পিএসসি চেয়ারম্যান।

এ ছাড়া কাছাকাছি সময়ের মধ্যে ৩৭তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল ও মৌখিক পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করা হবে বলেও জানান তিনি।

রোববার পিএসসি কার্যালয়ে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, ফলাফল তৈরির জন্য পুরোদমে কাজ করে যাচ্ছে পিএসসি।

পিএসসি সূত্রে জানা গেছে, ৩৬তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন ৫ হাজার ৯৯০ জন। প্রথম শ্রেণির ২ হাজার ১৮০ জন গেজেটেড কর্মকর্তা নিয়োগ দিতে ২০১৫ সালের ৩১ মে ৩৬তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। গত বছরের ৮ জানুয়ারি প্রিলিমিনারি পরীক্ষা হয়। দুই লাখের বেশি পরীক্ষার্থী এতে অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন মাত্র ১৩ হাজার ৬৭৯ জন। গত বছরের সেপ্টেম্বরে তাদের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন ১২ হাজার ৪৬৮ জন। লিখিত পরীক্ষায় পাস করেন ৫ হাজার ৯৯০ জন। তারা মৌখিক পরীক্ষা দেওয়া শুরু করেন ১২ মার্চ থেকে। তা শেষ হয় ৭ জুন।

এখন তিনটি পরীক্ষা নিয়ে তারা কাজ করছেন জানিয়ে সাদিক বলেন, ‘এখন কাজ হলো-৩৬তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল তৈরি, ৩৭তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল দেয়া ও মৌখিক পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ এবং ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা গ্রহণ করা।’ একসঙ্গে এত পরীক্ষা নিয়ে কাজ করতে গিয়ে প্রতিটির কার্যক্রম কিছুটা দেরি হচ্ছে বলেও জানান পিএসসি চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, ‘৩৮তম বিসিএস পরীক্ষা অক্টোবরের শেষে নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু এই বিসিএসে প্রায় সাড়ে তিন লাখ পরীক্ষার্থী আবেদন করেছেন। তাই এই বিপুলসংখ্যক ছেলেমেয়ের পরীক্ষা নেয়ার স্থান, প্রশ্নপত্র ও উত্তরপত্র ছাপানোসহ সব মিলে বিশাল এক কর্মযজ্ঞ করতে হবে আমাদের। এ জন্য কিছুটা দেরি হতে পারে এই পরীক্ষা নিতে।’

৩৭তম বিসিএসের প্রাথমিক বাছাই (প্রিলিমিনারি) পরীক্ষায় পাস করেন ৮ হাজার ৫২৩ জন। গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন ২ লাখ ৪৩ হাজার ৪৭৬ জন পরীক্ষার্থী।

আপনার মন্তব্য