ক্রীড়া ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

ছবি: সংগৃহীত

কে বলেছে নেইমারের অভাব দারুণ প্রভাব ফেলবে বার্সার পারফরম্যান্সের ওপর। বরং, যা দেখা যাচ্ছে তাতে তো সবাই এখন নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে, এক লিওনেল মেসি থাকলে আর কারও প্রয়োজন নেই কাতালান ক্লাবটির। ভীনগ্রহের ফুটবলার লিওনেল মেসির দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকে লা লিগায় এসপানিওলকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। শনিবার রাতে ক্যাম্প ন্যুতে বার্সার ৫-০ ব্যবধানের জয়ে অন্য গোল দুটি করেন লুইস সুয়ারেস ও জেরার্দ পিকে।

খেলার শুরু থেকে চেপে ধরলেও বার্সা সহজে গোল আদায় করতে পারেনি। উল্টো মাঝে-মধ্যে বার্সেলোনার রক্ষণের পরীক্ষা নিচ্ছিল এসপানিওল। তাদের পাল্টা আক্রমণের ঝাপটা সামলাতে কখনও কখনও মেসিকে পর্যন্ত নেমে আসতে হয়েছে নিজেদের রক্ষণে।

অবশেষে ২৬তম মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। ইভান রাকিতিচের ডিফেন্স চেরা পাস ধরে পায়ের কারিকুরিতে এগিয়ে গিয়ে গোল করেন মেসি। তবে রিপ্লেতে দেখা গেছে অফ সাইডে ছিলেন মেসি। ৩৪তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল পেয়ে যান মেসি।

৪৩তম মিনিটে একটুর জন্য ব্যবধান কমাতে পারেনি এসপানিওল। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাবলো পিয়াতির শট বারে লেগে। দ্বিতীয়ার্ধের প্রথম সাত মিনিটে একটি করে সুযোগ পায় দুই দল। তবে কেউ কাজে লাগাতে পারেনি।

আগের ম্যাচে জোড়া গোল করা মেসি ৬৭তম মিনিটে পূরণ করেন হ্যাটট্রিক। তার কাছ থেকে বল পাওয়া সুয়ারেসকে ঠেকাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন এসপানিওলের প্রায় সবাই। উরুগুয়ের স্ট্রাইকার শট না নিয়ে বল দেন আলবাকে। তার বুদ্ধিদীপ্ত পাস খুঁজে পায় অরক্ষিত মেসিকে। বাকি টুকু সহজেই সারেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক।

এবারের লিগে মেসির এটা পঞ্চম গোল। আর লা লিগার ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতার গোল হলো ৩৫৪টি। ৮৭তম মিনিটে কর্নার থেকে গোল পায় পিকে। এরপর ৯০তম মিনিটে স্কোরলাইনে নাম লেখান সুয়ারেস। চলতি মৌসুমে এটাই তার প্রথম গোল।

টানা তিন জয়ে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা। ভালেন্সিয়ার মাঠে গোলশূন্য ড্র করা আতলেতিকো মাদ্রিদের পয়েন্ট ৫। দিনের প্রথম ম্যাচে লেভান্তের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্টও ৫।

আপনার মন্তব্য