বিদেশ ডেস্ক

অন্যকে জানাতে পারেন:

Nurse
প্রতীকী ছবি

বখশিশ না দেওয়ায় প্রসূতির পেটে সেলাই না করেই বাসায় পাঠিয়ে দিলেন নার্স! এ অভিযোগে ইতোমধ্যে ওই নার্সকে বদলি করা হয়েছে। 

ভারতীয় গণমাধ্যমে খবরে বলা হয়, ভারতের হরিয়ানার সোনপতের বাসিন্দা সন্তানসম্ভাবা সঙ্গীতা সিং সোনপত সিভিল হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপালে ভর্তির পর স্বভাবিকভাবেই তার সন্তান জন্ম হয়। বাচ্চা হওয়ার পর প্রসূতির পরিবারে কাছে বখশিশ চায় ওই নার্স। কিন্তু তাঁকে টাকা দিতে রাজি হননি প্রসূতির পরিবার।

এদিকে পরদিন সঙ্গীতাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। ২ দিন পর ফের শুরু হয় যন্ত্রণা। চিকিৎসক তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। সিভিল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে পরীক্ষা নিরীক্ষার পর সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক তাঁর বাড়ির লোককে জানান, প্রসবের পর সেলাই না করেই সঙ্গীতাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে, সে কারণে এই যন্ত্রণা।

এদিকে বকশিশ না পেয়ে ওই নার্সই এমন কাজ করেছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করে সঙ্গীতার পরিবার। 

হাসপাতালের প্রিন্সিপাল মেডিক্যাল অফিসার সি পি আরোরা জানিয়েছেন, রোগীর পরিবার দু'টি অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে তদন্ত হবে। হাসপাতালের প্রত্যেক কর্মীকে সাবধান করা হয়েছে। বখশিশ চাওয়া নার্সকে প্রত্যন্ত এলাকার একটি হাসপাতালে বদলি করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

আপনার মন্তব্য